সর্বশেষ

অনূর্ধ্ব-১৮ নারী সাফ ফুটবল

নেপালকে ২-১ গোলে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন

নেপালকে ২-১ গোলে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন
ছবি - সংগৃহীত

অনূর্ধ্ব-১৮ নারী সাফ ফুটবলে বাংলাদেশের শুরুটা বেশ ভালোই হয়েছিল। ‘বি’ গ্রুপ নিজেদের প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানকে ১৭-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েই সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছিল বাংলাদেশ। আজ বিনা টেনশনে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে গ্রুপ সেরা হতে নেপালের বিরুদ্ধে মাঠে নেমেছিল মৌসুমি-স্বপ্নারা। আর নেপালকে ২-১ গোলে হারিয়ে সেরা হয়েই গ্রুপ পর্ব  শেষ করেছে লাল-সবুজের জার্সিধারী কিশোরীরা।


মাঠে নামার আগে কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন নিজের লক্ষ্য জানিয়েছেন। ড্র নয়, জয় নিয়েই মাঠ ছাড়তে চান তিনি, ‘নেপাল যথেষ্ট শক্তিশালী দল। ওদের খাটো করে দেখার সুযোগ নেই। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে আমাদের মেয়েরাও দুর্দান্ত ফুটবল খেলছে। আশা করি, আজও জয় নিয়ে মাঠ ছাড়বে মেয়েরা।’ কোচের কথা মতো জয় নিয়েই মাঠ ছেড়েছে স্বপ্না-কৃষ্ণারা।


ভুটানের চাংলিমিথাং স্টেডিয়ামে ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণ করে বাংলাদেশ। আর তার ফলও পেয়ে যায় দ্রুত। ১৩ মিনিটেই দলকে এগিয়ে নেন আগের ম্যাচে ৭ গোল করা স্বপ্না। বাংলাদেশের গোলপোস্ট থেকে ডিফেন্ডারের পাঠানো শট চলে আসে নেপালের ডি-বক্সের সামনে। সেখান থেকে নেপালের জালে বল পাঠাতে ভুল করেননি স্বপ্না। নেপালের গোলরক্ষককে বোকা বানিয়ে জালে বল পাঠিয়ে স্কোর লাইন ১-০ করেন স্বপ্না। এরপর ২৬ মিনিটে ব্যবধান বাড়ান কৃষ্ণারানী সরকার। বাংলাদেশের গোলরক্ষকের পাঠানো বল থেকে গোল করেন তিনি।


২-০ গোলেই এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় দু’দল। তবে বিরতিতে যাওয়ার কয়েক মিনিট আগে একটা পেনাল্টি পায় বাংলাদেশ। তবে সেটা থেকে গোল আদায় করে নিতে পারেননি স্বপ্না। বিরতি থেকে এসে বেশ কয়েকবার আক্রমণ শানালেও কাজের কাজ কেউই করতে পারেননি। গোল পরিশোধের জন্য মরিয়া হয়ে ওঠে নেপাল। কিন্তু তাদের আক্রমন বেশ ভালোভাবেই প্রতিহত করে ছোটনের শিষ্যরা। উল্টো ম্যাচ শেষ হওয়ার ঠিক কয়েক সেকেন্ড আগে একটি গোল খেয়ে বসে। নেপালের রেশমি কুমার দর্শণীয় গোল করেন। যদিও দলের হার ঠেকাতে পারেননি।


সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ নারী চ্যাম্পিয়নশিপে ‘বি’ গ্রুপ থেকে নেপালকে সঙ্গে নিয়ে সেমিফাইনালে উঠেছে বাংলাদেশ। অপর গ্রুপ থেকে ভারত ও ভুটান সেমির টিকিট পেয়েছে। আগামী ৫ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে দুইটি সেমিফাইনাল। প্রথম সেমিফাইনালে ভারতের মুখোমুখি হবে নেপাল। আর দিনের শেষ ম্যাচে ভুটানকে মোকাবেলা করবে বাংলাদেশ।

মন্তব্য করুন