সর্বশেষ

অসহায় পরিবারটিকে দেখার কেউ নেই

অসহায় পরিবারটিকে দেখার কেউ নেই

হাতীবান্ধা,লালমনিরহাট প্রতিনিধি : লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার বড়খাতা গ্রামের মৃত বকুল হোসেনের বৃদ্ধা মা ও স্ত্রী সন্তানদের দেখার মত কেউ নেই। বকুল হোসেনের মৃত্যুর পর অসহায় পরিবারটি মানবেতর জীবন যাপন করছেন।
সরেজমিনে গিয়েদেখা গেছে, পরিবারটি এক মাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তিকে হারিয়ে নি:শ্ব হয়ে পড়েছে। তার বৃদ্ধা মা স্ত্রী ও তিন সন্তান অসহায় অবস্থায় পড়ে আছেন। বর্তমানে সংসারে নুনআনতে পান্তা ফুরায় অবস্থা। জায়গা জমি নেই মাত্র ৫ শত বাড়ি ভিটা জমি । সন্তানদের নিয়ে না খেয়ে দিন কাটাচ্ছেন।জানা গেছে, উপলোর বড়খাতা গ্রামের ৫ নং ওয়ার্ডের মৃত আবুল হোসের এর ছেলে মৃত বকুল হোসেন (৩৫) দিন মুজুরী করতে ঢাকায় যান। সেখানে কয়েক মাস কাজ করার পর অসুস্থ হয়ে পরেন। অসুস্থ অবস্থায় কয়েকজন স্থানীয় মেডিকেল ভর্তি করান। ভর্তির এক দিন পর সে মরাযান।
বাড়িতে বৃদ্ধা মা ছাপিয়া বেগম (৬৩),স্ত্রী রোকছানা বেগম (৩০) ও ১ ছেলে ২ মেয়ে। ছেলে রিশাত তৃতীয়, মেয়ে বিথী (৫),সিথী (৩)।
বৃদ্ধা ছাপিয়া বেগম (৬৩) বলেন, আল্লাহ মোর ব্যাটাকে নিয়া গেল। এখন হামরা কি খাম। কয়দিন থেকে উপাস আছি। কি যে খাম আল্লাহ জানে।
এ বিষয়ে বড়খাতা ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য আনোয়ার হোসেন বলেন,্ওই পরিবারকে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে সহযোগীতা করা হবে।


 


 

মন্তব্য করুন