সর্বশেষ

ভাঙ্গনের মুখে বসতবাড়ী

ধুনটে মানাস নদীতে ড্রেজার বসিয়ে বালু উত্তোলন

ধুনটে মানাস নদীতে ড্রেজার বসিয়ে বালু উত্তোলন

ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়ার ধুনটের ছোট চিকাশী গ্রামের মানাস নদীতে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এতে নদীর তীরবর্তী বসতবাড়ী ও ফসলী জমি ভাঙ্গনের মুখে পড়েছে। এবিষয়ে মঙ্গলবার বিকালে ওই গ্রামের ক্ষতিগ্রস্থ রসুল আলী, জুয়েল রানা, জুয়েল মিয়া ও আজিজুর রহমান সহ কয়েক ব্যক্তি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
জানাগেছে, চিকাশী ইউনিয়নের গজারিয়া ও ছোট চিকাশী গ্রামের পাশ দিয়ে বহমান মানাস নদী। গত ৬ অক্টোবর থেকে ছোট চিকাশী গ্রামের বাদশা মিয়ার ছেলে চপল মাহমুদ ওই নদীতে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন করে পাইপের সাহায্যে একই গ্রামের অফফের আলীর পুকুর ভরাট করছেন। এদিকে নদীর গভীর তলদেশ থেকে বালু উত্তোলনের কারনে নদীর তীরবর্তী বসতবাড়ী ও ফসলী জমিতে ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে।
এবিষয়ে ছোট চিকাশী গ্রামের মৃত জয়নাল আকন্দের ছেলে রসুল আলী বলেন, চপল মাহমুদ নামের এক ব্যক্তি প্রায় ৮ লাখ টাকার চুক্তি নিয়ে আমাদের বসতবাড়ীর সামনেই ডেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন করে আসছে। বালু উত্তোলনের কারনে প্রায় ১৫/২০টি পরিবারের বসতবাড়ী ও ফসলী জমিতে ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। এভাবে বালু উত্তোলন অব্যাহত থাকলে আমাদের শেষ সম্বল ভিটেমাটি টুকু নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাবে। এবিষয়ে প্রতিকার চেয়ে এলাকবাসী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন।
তবে ব্যবসায়ী চপল মাহমুদ বলেন, স্থানীয়ভাবে ম্যানেজ করেই বালু উত্তোলন করা হচ্ছে।
এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাজিয়া সুলতানা জানান, বালু উত্তোলনের বিষয়ে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এবিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য করুন