Mymensingh Division | ময়মনসিংহ বিভাগ | bdlives.com

বহুল প্রত্যাশিত ময়মনসিংহ বিভাগের গেজেট গত (১৩ অক্টোবর) রাতে প্রকাশিত হয়েছে। মহামান্য রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের মাঠ প্রশাসন শাখা-২ এর প্রজ্ঞাপনে সিনিয়র সচিব ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী স্বাক্ষরিত এই গেজেটটি প্রকাশ করা হয়। উপমহাদেশের অন্যতম বৃহৎ জেলাকে বিভাগ প্রতিষ্ঠার লক্ষে দীর্ঘ ২৬ বছর আন্দোলনের প্রেক্ষিতে অবশেষে গত ১৪ সেপ্টেম্বর নিকারের বৈঠকে অনুমোদনের পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ময়মনসিংহ, জামালপুর, শেরপুর ও নেত্রকোনা এই ৪ জেলা নিয়ে ময়মনসিংহ বিভাগ ঘোষণা করেন। খুব শিগগির নবগঠিত বিভাগের প্রথম বিভাগীয় কমিশনার এবং পুলিশের ডি.আই.জি নিয়োগ দেয়া হবে এবং পর্যায়ক্রমে অন্য সব অফিসের কার্যালয়ও স্থাপন করা হবে। ঢাকা বিভাগকে ভেঙে দেশের অষ্টম বিভাগ ময়মনসিংহে এক কোটি ১৪ লাখ ৭০ হাজার ৪৭ জনসংখ্যা এবং এর এই বিভাগের আয়তন ১৩ হাজার ৬৩১.১২ বর্গকিলোমিটার। নবগঠিত ময়মনসিংহ বিভাগের চারটি জেলার মধ্যে রয়েছে মোট ২৪টি আসন, উপজেলা ৩৫টি, থানা ৩৭টি, পৌরসভা ২৬টি, ইউনিয়ন ৩৫২টি, এবং গ্রাম ৭ হাজার ৩০টি। জনসংখ্যার ঘনত্ব: ১০১০ জন প্রতিবর্গ কি:মি:। আয়তনে সবচেয়ে বড় জেলা: ময়মনসিংহ (৪,৩৯৪.৫৭ বর্গ কি:মি:) এবং আয়তনে সবচেয়ে ছোট জেলা: শেরপুর (১,৩৬৪.৬৭ বর্গ কি:মি:)।ময়মনসিংহ, জামালপুর, শেরপুর ও নেত্রকোণার সঙ্গে টাঙ্গাইল ও কিশোরগঞ্জ জেলা রেখে ময়মনসিংহ বিভাগ গঠনের প্রস্তাবে গত ২৬ জানুয়ায়ী, ২০১৫ নীতিগত অনুমোদন দিয়েছিল মন্ত্রিসভা। তবে চূড়ান্ত অনুমোদনে টাঙ্গাইল ও কিশোরগঞ্জ জেলাকে ঢাকার সঙ্গেই রাখা হয়। ময়মনসিংহ বিভাগ হওয়ার আগ পর্যন্ত ঢাকা বিভাগে জেলা ছিল ১৭টি। নতুন বিভাগ হওয়ায় এখন ১৩ জেলা নিয়ে ঢাকা বিভাগ। ময়মনসিংহ জেলার প্রতিষ্ঠা লাভ করে ১৭৮৭ খ্রিস্টাব্দের ১লা মে। ১৯৮৪ খ্রিস্টাব্দে সকল মহকুমা জেলায় উন্নীত করার সরকারি সিদ্ধান্ত গৃহীত হওয়ার ফলে বৃহত্তর ময়মনসিংহ জেলার ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইল, জামালপুর, কিশোরগঞ্জ, নেত্রকোনা ও শেরপুর সকল মহকুমাই জেলায় উন্নীত হয়। ময়মনসিংহ বাংলাদেশের ৮টি প্রশাসনিক বিভাগের মধ্যে অন্যতম। এই বিভাগের আয়তন ১০,৪৮৫ বর্গ কি.মি. এবং লোকসংখ্যা ১,১৩,৭০,০০০ জন। ঢাকা বিভাগের উত্তর পার্শ্বের কয়েকটি জেলা নিয়ে ২০১৫ সালে এই বিভাগটি গঠিত হয়। এই বিভাগের সদরদপ্তর ময়মনসিংহ জেলা শহরে অবস্থিত।